ডাকাতির প্রস্তুতিকালে তিন ডাকাতকে গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, 16 August 2023, 207 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
ডাকাতির প্রস্তুতিকালে তিন ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে পৌর এলাকার ভাদুঘর ফাটাপুকুর পাড় সংলগ্ন পালকি কমিউনিটি সেন্টারের সামনে থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত কাঠের ১টি রামদা এবং ৩টি ছুরি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার উত্তর পৈরতলার খুশু মিয়া প্রকাশ খুরশিদ মিয়ার ছেলে এনাতুল ওরফে এনাদুল ওরফে এনামুল ওরফে ইমন (৩৩), পৌর এলাকার দক্ষিণ মৌড়াইলের আবদুর রকিবের ছেলে মোঃ রুবেল ওরফে রাজ্জাক (৩৪) এবং পৌর এলাকার পশ্চিম মেড্ডা মিন্দালী পাড়ার শহিদ মিয়ার ছেলে মোঃ শরীফ (২৯)।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আসলাম হোসেন বলেন, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আজ ১৬ আগস্ট বুধবার দুপুরে তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

সরাইল থানা পুলিশের উদ্যোগে আন্ত:ইউনিয়ন কাবাডি…

চলারপথে রিপোর্ট : মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ পুলিশ কর্তৃক Read more

জমির নিবন্ধন কর এলাকাভেদে কমল কিছুটা

অনলাইন ডেস্ক : কয়েকটি ক্ষেত্রে জমি নিবন্ধনের খরচ আবার কিছুটা Read more

জাতীয় স্মৃতিসৌধে দর্শনার্থীদের ১২ দিন প্রবেশ…

অনলাইন ডেস্ক : মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ৪-১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত Read more

সারাদেশে অবৈধ প্রার্থী ৭৩১ জন, বৈধ…

অনলাইন ডেস্ক : দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে সারাদেশে Read more

মুরগীর আড়তে চুরির ঘটনায় গ্রেফতার ১

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় “মায়ের দোয়া মোরগ সেন্টার” নামে একটি Read more

বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে নদী বাঁচাতেই হবে:…

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‌‘আমাদের নদী বাঁচাতেই Read more
ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শরিকরা

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন আওয়ামী Read more

অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার

চলারপথে রিপোর্ট : কসবা থেকে অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করেছে Read more

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে…

চলারপথে রিপোর্ট : আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে আজ Read more

শিক্ষকদের সাথে শিক্ষার মনোন্নয়ন বিষয়ক মতবিনিময়…

চলারপথে রিপোর্ট : শিক্ষাবান্ধব-নিরাপদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া অব্যাহত রাখতে শিক্ষকদের যার যার Read more

অর্ধশতাধিক অবৈধ দোকান উচ্ছেদ

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল বাজারের অভ্যন্তরে অবৈধভাবে গড়ে Read more

সিঙ্গাপুরকে ৮-০ গোলে বিধ্বস্ত করলো বাংলাদেশ

ডেস্ক রিপোর্ট : কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে ফিফা Read more

সাংবাদিক হত্যার প্রধান আসামীর স্বীকারোক্তি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, 10 January 2023, 561 Views,
স্টাফ রিপোর্টার:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাংবাদিক ও সেচ্ছাসেবক আশিকুল ইসলাম (২৭)কে হত্যার মামলায় প্রধান আসামী হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সদর) আরেফিন আহমেদ হ্যাপীর কাছে প্রধান আসামী রায়হান মিয়া ওরফে সোহান এই জবানবন্দী দেন। পাশাপাশি একই আদালতে অপর গ্রেফতারকৃত আসামী রায়হানের সহযোগী সাফিন আহমেদ জুনায়েদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ।

এর আগে গত সোমবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তরুণ সাংবাদিক আশিকুল ইসলাম আশিক (২৭) খুনের ঘটনার পর সন্ধ্যায় শহরের শিমরাইলকান্দি রেললাইন এলাকা থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিসহ আটক করা হয় প্রধান অভিযুক্ত রায়হান মিয়া ওরফে সোহানকে। আটক রায়হান পৌর এলাকার ভাদুঘরের শিরু মিয়ার ছেলে। রাতে এই হত্যাকাণ্ডের জড়িত থাকার অভিযোগে দক্ষিণ মৌড়াইল এলাকার আব্দুল হামিদের ছেলে সাফিন আহমেদ জুনায়েদকে আটক করে পুলিশ। রাতেই এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। নিহত আশিকের বাবা আশরাফ উদ্দিন বাদি হয়ে সদর থানায় করা হত্যা মামলায় দুইজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৩/৪জনকে আসামী করা হয়েছে। মামলা রুজু শেষে ঘটনার পরপর আটক দুইজনকে এই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে উপস্থাপন করে পুলিশ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, আশিক হত্যা মামলায় প্রধান আসামী রায়হান ও তার সহযোগী জুনায়েদকে সোমবার রাতেই গ্রেফতার করা হয়। এরমধ্যে রায়হান মঙ্গলবার বিকেলে আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দী দিয়েছেন।

আদালতে দেওয়া রায়হানের জবানবন্দীর সূত্রে ওসি এমরান জানান, প্রায় ১০ দিন আগে জেলা শহরের কাউতলীতে একটি হাসপাতালে এক রোগীকে রক্ত দিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাতিঘরের সদস্যদের ফোন দেওয়া হয়। তাদের ফোনে বাতিঘরের সদস্যরা রক্তদাতা সংগ্রহ করে সেই হাসপাতালে দিতে যায়। এ সময় সেই রক্তদাতার এক কথাকে কেন্দ্র করে বাতিঘরের সদস্য আব্দুর রহমানের বাদানুবাদ হয়। আব্দুর রহমান বাতিঘরের অন্যান্য সদস্যদের কল দিলে আশিকুল ইসলাম আশিক ওই হাসপাতালে যায়। বাতিঘরের আরেক সদস্যের সাথে রায়হানও সেই হাসপাতালে যায়। রায়হান বাতিঘরের অপর সদস্যের সাথে গেলেও সেখানে গিয়ে একটি কথাকে কেন্দ্র করে আশিকের সাথে বাদানুবাদ থেকে হাতাহাতি হয়। বিষয়টি জেনে বাতিঘরের সভাপতি আজহার উদ্দিন দুইজনকে ডেকে মিমাংসা করে দেন। কিন্তু হাতাহাতির সেই ক্ষোভ মনে পুষে রাখে রায়হান। এক পর্যায়ে সোমবার (৯ জানুয়ারি) অবকাশ পার্কে ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাতিঘরের মাসিক মিটিংয়ের খবর পায় রায়হান তার সহযোগী জুনায়েদ। সভা শেষে রিকশা দিয়ে ফেরার পথে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা রায়হান ছুরিকাঘাত করে আশিককে। এতে আশিক নিহত হন।

অফিসার ইনচার্জ আরও জানান, রায়হানের সহযোগী জুনায়েদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে আদালতে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছি। আদালত রিমান্ডের আবেদন মঞ্জুর করলে তাকে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

আশিকুল ইসলাম আশিক রাজধানী থেকে প্রকাশিত দৈনিক পর্যবেক্ষণ পত্রিকার ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ছিলেন। এছাড়াও ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাতিঘর নামে অজ্ঞাত লাশ দাফন ও রক্তদানকারী সংগঠনের সক্রিয় সদস্য ছিল।

আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানি ॥ সংশ্লিষ্টদেরকে নোটিশ

স্টাফ রিপোর্টার:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে ব্রোকেন স্টোন বা চূর্ণ পাথরের ঘোষণা দিয়ে ভারত থেকে আমদানি হয়েছে ২৭০০ টন পাথরের ধুলা (ডাস্ট)। মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানির অভিযোগে ছাড়পত্র মিলছে না কাস্টমসের। যে কারণে প্রায় এক মাস ধরে আখাউড়া স্থলবন্দরে এই ডাস্ট বা ধুলাগুলো পড়ে আছে। কাস্টমসের গঠিত তদন্ত কমিটিও ডাস্ট উল্লেখ করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন। সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়িরা দাবি করেছেন, এতে প্রতিদিন লোকসান গুনতে হচ্ছে তাদেরকে। এ জন্য তারা কাস্টমস কর্তৃপক্ষকে দায়ী করছেন। রপ্তানিমুখী আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে প্রথমবারের মতো চূর্ণপাথর আমদানি হয় গত ১৩ নভেম্বর। এরপর কয়েক দফায় মোট ২৭০০ টন আমদানি করে ভারতীয় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এফকনস ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড। এ প্রতিষ্ঠানটি আশুগঞ্জ নদীবন্দর থেকে আখাউড়া স্থলবন্দর পর্যন্ত মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত করার কাজের জন্য পাথর আমদানি করেছে। আমদানিকৃত চূর্ণপাথরগুলো প্রতি টন আমদানি হয়েছে ১৩ মার্কিন ডলারে। এগুলো বন্দর থেকে ছাড়ানোর কাজ পায় সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট খলিফা এন্টারপ্রাইজ। তবে কাস্টমস থেকে ছাড়পত্র নিতেই বাঁধে বিপত্তি। প্রথমবারের মতো আমদানি হওয়ায় পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর ছাড়পত্র দেওয়ার কথা জানায় কাস্টমস। পরবর্তীতে এগুলো পরীক্ষা করে পাথরের বদলে ডাস্ট আনা হয়েছে জানিয়ে আটকে দেয়া হয়। ফলে প্রতিদিনই বন্দর কর্তৃপক্ষকে মাশুল বাবদ প্রায় ৩৬ হাজার টাকা গুনতে হচ্ছে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানকে।

অভিযোগ উঠেছে- আমদারিকারক প্রতিষ্ঠান ভাঙা পাথরের ঘোষণা দিয়ে ডাস্ট এনেছে। এজন্য কাস্টমসের তরফ থেকে চার সদস্যের তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়। তদন্ত শেষে রিপোর্ট দেওয়া হয় ডাস্ট হিসেবে। তবে দ্রুত এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে বলে জানান কাস্টমসের কর্মকর্তারা।
এদিকে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে চূর্ণ পাথর বা ডাস্ট আমদানির অনুমতি না থাকায় আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানকে আগামী ১০ দিনের মধ্যে তাদেরকে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট খলিফা এন্টারপ্রাইজকেও কার্যার্থে একই চিঠি দেওয়া হয়। সিএন্ডএফ এর মালিক হলেন আখাউড়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মো.তাকজিল খলিফা কাজল।
খলিফা এন্টার প্রাইজের প্রতিদিন নাসির উদ্দিন বলেন, ‘আমরা প্রথম দফা আনার পর বলা হয় সব আনার পর অনুমতি দেওয়া হবে। এখন বলা হচ্ছে এ ধরণের পাথরের অনুমতি নেই। এখন পাথর আটকে থাকায় আমরা লোকসানের মুখে পড়েছি।’
আখাউড়া স্থল শুল্ক স্টেশনের রাজস্ব কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, ‘তদন্ত করে আমদানি করা পণ্য ডাস্ট হিসেবে পাওয়া গেছে। এ ধরণের পণ্য আমদানির অনুমতি নেই। এখন এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ যথাযথ ব্যবস্থা নিবেন।’

জিমে নারী নির্যাতনকারী সেই ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, 4 September 2023, 158 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের একটি ব্যায়ামাগারে (জিমে) দুই বোনসহ তিনজনকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি হাবিবুল্লাহ ভুইয়া বিপ্লবকে সংগঠন থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

গতকাল রবিবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভনের সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর পাশাপাশি তাঁকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করতে কেন্দ্রীয় সংসদে কেন সুপারিশ করা হবে না, তা আগামী সাত কর্মদিবসে সশরীরে হাজির হয়ে লিখিত কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

এতে উল্লেখ করা হয়েছে, সংগঠনের নীতি ও আদর্শ পরিপন্থি কার্যকলাপে লিপ্ত থাকার অভিযোগ ওঠায় বিপ্লবকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গোপনে ভিডিও ধারণের প্রতিবাদ করায় দুই নারীসহ তিনজনকে গত বুধবার জেলা শহরের বিএস ফিটনেস ক্লাব নামের একটি জিমে পরিচালক বিপ্লব, তাঁর সহযোগী সামিন ও জিমের ফিটনেস ট্রেইনার মিতুর বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ ওঠে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে বিপ্লবসহ অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে পরদিন তাদের বিরুদ্ধে মামলা নথিভুক্ত করে আদালতে পাঠানো হয়। তিনজনই এখন জেলহাজতে।

কাপড়ের রঙ দিয়ে আইসক্রিম তৈরি, ফ্যাক্টরীকে জরিমানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, 7 June 2023, 350 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কাপড়ের রঙ দিয়ে আইসক্রিম প্রস্তুত করার অপরাধে “জেসি সুপার আইসক্রিম” নামে একটি আইসক্রিম ফ্যাক্টরিকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

আজ ৭ জুন বুধবার দুপুর ১২টায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারি পরিচালক মোঃ মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে পৌর এলাকার শিমরাইলকান্দি গ্রামে অবস্থিত ওই আইসক্রিম ফ্যাক্টরীকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ ব্যাপারে অভিযান পরিচালনা পরিচালনাকারী ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারি পরিচালক মোঃ মেহেদী হাসান বলেন, বুধবার দুপুরে শিমরাইলকান্দি এলাকায় অবস্থিত “জেসি সুপার আইসক্রিম” ফ্যাক্টরীতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানকালে দেখা যায় অপরিষ্কার ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে ওই ফ্যাক্টরীতে কাপড়ে দেয়ার রঙ দিয়ে আইসক্রিম তৈরি করছে। পাশাপাশি অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে আইপি (আইসক্রিম তৈরীর মূল উপাদান) সংরক্ষণ করে রাখা হয়। প্রতিষ্ঠানটিতে আইসক্রিম তৈরির কর্মীদের কোন ফিটনেস সার্টিফিকেট নেই। পরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ওই ফ্যাক্টরিকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ৪ ক্লিনিককে জরিমানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, 5 July 2023, 268 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে ৪টি ক্লিনিককে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ ৫ জুলাই বুধবার দুপুরে সদর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ মোশারফ হোসেন শহরের কুমারশীল মোড় এলাকায় অবস্থিত নবজাতক শিশু ও জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ১০ হাজার টাকা, আলিফ জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫ হাজার টাকা, গ্রীন ভিউ স্পেশালাইজড হসপিটালকে ১০ হাজার টাকা ও আল-খলিল হসপিটাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টার ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ মোশারফ হোসেন বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগের সহায়তায় বুধবার দুপুরে জেলা সদরের বিভিন্ন ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানকালে বিভিন্ন অনিয়ম, অব্যস্থাপনা, মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ রাখা ও অপরিস্কার-অরিচ্ছন্নতার দায়ে চারটি ক্লিনিককে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় ও কয়েকটি ক্লিনিককে সর্তক করা হয়। অভিযানকালে সদর উপজেলা স্বাস্থ্য অফিসের সহকারী সার্জন ডা. সম্বিতা চক্রবর্তী ও সদর মডেল থানার পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।