প্রবাসীরা হাজার টাকা কিস্তিতে ১০ লাখ টাকার বীমা পাবেন

জাতীয়, 12 March 2023, 886 Views,

চলারপথে ডেস্ক :
বীমা সুবিধা বেড়েছে প্রবাসী কর্মীদের। বিদেশ যাত্রার সময় এক হাজার টাকা কিস্তি (প্রিমিয়াম) দেওয়া কোনো প্রবাসীর মৃত্যু বা অঙ্গহানি হলে বীমার আওতায় ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ পাবেন কর্মী ও তার পরিবার। আর চাকরি হারিয়ে ছয় মাসের মধ্যে ফিরলে পাবেন ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ।

এসব সুবিধা রেখে আজ ১২ মার্চ রবিবার জীবন বীমা করপোরেশেনের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড।

এর আগে ২০১৯ সালে প্রবাসী কর্মীদের জন্য বাধ্যতামূলক বীমা চালু করে সরকার। ৯৯০ টাকা কিস্তিুতে দুই বছর মেয়াদী বীমায় সর্বোচ্চ দুই লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হতো।

নতুন বীমা নিয়মে ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সীরা পাঁচ বছর মেয়াদী বীমা করতে পারবেন। বীমার মেয়াদ পূর্ণের ৯০ দিন পরও দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে পুরো ১০ লাখ টাকা পাবে কর্মীর পরিবার। দৃষ্টিহানী, হাতের কব্জি, পায়ের গোড়ালি কাটা পড়লে পুরো ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। হাতের বা পায়ের একটি আঙ্গুল কাটা পড়লে লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

তবে প্রিমিয়াম জমা দেওয়ার ছয় মাসের মধ্যে আত্মহত্যা করলে ক্ষতিপূরণ পাবে না কর্মীর পরিবার। এ ছাড়া এইডস ও মাদক গ্রহণে মৃত্যু হলে বীমা সুবিধা পাওয়া যাবে না।

জীবন বীমা করপোরেশন মুনাফার ৫০ শতাংশ ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মাধ্যমে প্রবাসীদের জন্য খরচ করবে। একে নজিরবিহীন সুবিধা বলেছেন চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ।

বিদেশে কোনো মৃত্যু হলে সৎকারের জন্য ৩৫ হাজার এবং ক্ষতিপূরণ বাবদ তিন লাখ টাকা দেয় সরকার। তা অব্যহত থাকবে জানিয়ে ইমরান আহমদ বলেন, নিয়মানুযায়ী নিয়োগকারী কর্মীরা চিকিৎসা দেবে। কিন্তু তা পাওয়া যাচ্ছে না। কর্মীরা বিদেশে টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছে না। তাদের জন্য বিকল্প ভাবতে হবে। যে দেশে কর্মী যাচ্ছে, সেই দেশে বীমা করা যায় কিনা- তা দেখা যেতে পারে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রিক্রুটিং এজেন্সির মালিকদের সংগঠন বায়রার সাবেক সভাপতি বেনজির আহমেদ। তিনি বলেন, নতুন কর্মীরা বর্ধিত বীমা সুবিধা পাবেন। আগে থেকে যে লাখ লাখ কর্মী বিদেশে রয়েছেন, তাদেরও বীমার আওতায় আনা প্রয়োজন।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন বলেন, প্রবাসী কর্মীদের পরিবার ও সন্তানরা অভিবাসনের সামাজিক মূল্য দিচ্ছে। তাদের জন্যও বীমা সুবিধা প্রয়োজন।

জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) মহাপরিচালক শহীদুল আলম বলেন, যেসব নারী কর্মী যৌন নির্যাতনের শিকার করে হয়ে দেশে ফিরেছেন, বীমায় তাদের ক্ষতিপূরণের বিষয়টি নেই। কর্মীরা বিদেশে আইনের জটিলতায় পড়লে, এর জন্য বীমা থেকে সহায়তা দেওয়া প্রয়োজন। একজন কর্মী তিন চার লাখ টাকা খরচ করে বিদেশ যান। চাকরি হারিয়ে ফিরলে ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ পর্যাপ্ত নয়।

চুক্তিতে জীবন বীমা করপোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুল হক চৌধুরী এবং ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক হামিদুর রহমান নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী।

Leave a Reply

আনারস চাষে বাজিমাত

চলারপথে রিপোর্ট : লালমাই পাহাড়ের ঢালুতে প্রথমবারের মতো বাণিজ্যিকভাবে আনারসের Read more

বিজয়নগরে সাড়ে ৮৪ লাখ টাকার ভারতীয়…

চলারপথে রিপোর্ট : বিজয়নগর উপজেলার ভারত সীমান্ত এলাকা হতে প্রায় Read more

জেনারেল হাসপাতাল ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বৈকালিক স্বাস্থ্যসেবা বন্ধ…

চলারপথে রিপোর্ট : ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চালু Read more

এবার ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিল…

অনলাইন ডেস্ক : এবার আরো এক দেশের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পেল Read more

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা আওয়ামী লীগের বৃক্ষরোপণ

চলারপথে রিপোর্ট : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় Read more

দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে দেয়া…

অনলাইন ডেস্ক : ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেয়া Read more

এখন গরিবেরা পেট ভরে ভাত খায়,…

চলারপথে রিপোর্ট : আশুগঞ্জ সাইলোর বিএমআরই (ব্যালেন্সিং, আধুনিকায়ন, বিস্তার এবং Read more

হোপ তাণ্ডবে দাপুটে জয়ে সেমির আশা…

অনলাইন ডেস্ক : পাঁজরের চোটে ব্র্যান্ডন কিং ছিটকে না গেলে Read more

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছোট আকারের গরুর চাহিদা সবচেয়ে…

চলারপথে রিপোর্ট : অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভাদুঘর পৌর Read more

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাজার কাঁপাচ্ছে ‘লালু মাস্তান’

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার ভাদুঘর বাস টার্মিনালের গরুর Read more

‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ ধ্বনিতে মুখরিত আরাফাত…

অনলাইন ডেস্ক : ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ ধ্বনিতে মুখরিত সৌদির আরাফাত Read more

নিষিদ্ধ হ্যালোসিন পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা…

অনলাইন ডেস্ক : অস্ত্রোপচারের সময় রোগীকে অচেতন করার জন্য ব্যবহৃত Read more

লটারিতে ৩ কোটি টাকা জিতলেন বাংলাদেশি প্রবাসী

আন্তর্জাতিক, জাতীয়, 20 September 2023, 727 Views,

অনলাইন ডেস্ক :
সৌদি আরব প্রবাসী এক বাংলাদেশি লটারিতে প্রায় তিন কোটি টাকা জিতেছেন। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ‘মাহজুজ ড্র’ জেতা ওই যুবকের নাম মোহাম্মদ শাহিন (৩১)। তিনি দাম্মামের একটি বেসরকারি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানে সুপারভাইজার পদে চাকরি করেন।

গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সর্বশেষ সাপ্তাহিক মাহজুজ ড্রতে ১ মিলিয়ন দিরহাম (বাংলাদেশি মুদ্রা ২ কোটি ৯৯ লাখ টাকা) জিতেন বাংলাদেশি প্রবাসী শাহিন।

হঠাৎ করে লটারি জয়ের ই-মেইল পেয়ে হতবাক হয়ে যান শাহিন। ইমেইলে মাহজুজ ড্রয়ের পক্ষ থেকে তাকে জানানো হয়, তাদের সাপ্তাহিক র‍্যাফেল পুরস্কারটি পাচ্ছে তিনি। তার টিকিটের আইডি নম্বর ৩৮২২৫৮১৯।

প্রথমে শাহিন লটারি জয়ের বিষয়টি বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না। পরে তার অ্যাকাউন্টে লগইন করে নিশ্চিত হন এক মিলিয়ন দিরহাম জিতেছেন তিনি।

শাহিন বলেন, আমি হতবাক ও বাকরুদ্ধ হয়ে গিয়েছিলাম। আমার মাহজুজ অ্যাকাউন্টে এত টাকা দেখে আমি নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না।

লটারি জয়ের সুসংবাদটি বাংলাদেশে তার পরিবারকেও জানিয়েছেন শাহিন।

অবৈধভাবে মাটি কাটার অপরাধে জরিমানা

জাতীয়, 8 June 2023, 639 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ভেকু মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে মাটি কেটে বিক্রির অপরাধে পৃথক দুটি অভিযান চালিয়ে তিন মাটি ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাকিলা বিনতে মতিন। এ সময় একটি ভেকু মেশিন জব্দ করা হয়। গত মঙ্গল ও বুধবার উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের চকুরিয়া ও আজগানা ইউনিয়নের পলাশতলী গ্রামে তিনি এই অভিযান পরিচালনা করেন।

জানা গেছে, পলাশতলী গ্রামে অবৈধভাবে ভেকু মেশিন দিয়ে মাটি কেটে বিক্রি করা হচ্ছে। খবর পেয়ে বুধবার ইউএনও শাকিলা বিনতে মতিন অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মাটিকাটার সঙ্গে জড়িত থাকায় ওই গ্রামের আজিজ সিকদারের ছেলে জাহিদুল ইসলামকে ১ লাখ ও বেলতৈল গ্রামের হাকিম সিকদারের ছেলে আনোয়ার সিকদারের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। এর আগে মঙ্গলবার উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের চকুরিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে মাটি কাটার দায়ে গুনটিয়া গ্রামের সিদ্দিক মিয়ার ছেলে রাজীব মিয়ার কাছ থেকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন তিনি। ইউএনও শাকিলা বিনতে মতিন জানান, অবৈধ মাটি কাটার বিরুদ্ধে তার এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের সরঞ্জাম যেন মানবতাকে আঘাত না করে: প্রধানমন্ত্রী

জাতীয়, 15 June 2023, 567 Views,

অনলাইন ডেস্ক :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের (৪আইআর) উপকরণগুলো মানবতাকে আঘাত বা অবমূল্যায়ন করে এমন কাজে ব্যবহার না করার বিষয়টি নিশ্চিতের আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যে, চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের সরঞ্জামগুলো আমাদের মানবতাকে আঘাত বা ক্ষুণ্ন করে এমন কাজে যেন ব্যবহার করা না হয়।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় বৃহস্পতিবার ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ) কর্তৃক আয়োজিত ‘নিউ ইকোনমি অ্যান্ড সোসাইটি ইন স্মার্ট বাংলাদেশ’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। খবর বাসসের

অনুষ্ঠান শেষে প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, চতুর্থ শিল্পবিপ্লব যেন সমাজে বিভাজন সৃষ্টি না করে, সে বিষয়টিও নিশ্চিত করার ওপর প্রধানমন্ত্রী জোর দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে, ৪আইআর আমাদের সমাজের মধ্যে আরো বিভাজন তৈরি করবে না। এ উদ্দেশে আমাদের আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কার্যকর সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব গড়ে তুলতে হবে।

এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকার দেশের তরুণদের ৪আইআর ও ভবিষ্যৎ কাজের জন্য তৈরি করতে শুরু করেছে।

তিনি আরো বলেন, আমি আত্মবিশ্বাসী যে আমাদের ছেলে-মেয়েরা ৪আইআরকে শুধু অনুসরণ করবে না; বরং নেতৃত্ব দেবে।

দেশের শিক্ষার্থীরা রোবোটিক্সে যে ধরনের উদ্ভাবনী কাজ করছে, তা দেখে উৎসাহ বোধ করেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা সারাদেশে যে উদ্ভাবন মেলার আয়োজন করে আসছি, সেখানেও তাদের মধ্যে দারুণ উৎসাহ দেখেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ অবশ্যই ডব্লিউিইএফ’র সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে একটি স্বাধীন ৪আইআর কেন্দ্রকে স্বাগত জানাবে।

সরকার ইতোমধ্যে বাংলাদেশে ৪আইআর-এর জন্য যথাযথ আইন, নীতি ও প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো তৈরির জন্য কাজ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, ইন্টারনেট অব থিংস, ন্যানোটেকনোলজি ইত্যাদি বিষয়ে পৃথক জাতীয় কর্ম-কৌশল তৈরি করেছি।

তিনি বলেন, এ লক্ষ্যে সরকার দেশের বিভিন্ন স্থানে ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি, ন্যানোটেকনোলজি এবং অন্যান্য বিষয়ে বিশেষায়িত ইনস্টিটিউট স্থাপন করছে।

সরকারপ্রধান বলেন, স্মার্ট গভর্নেন্সের জন্য ভবিষ্যতের রাজনৈতিক নেতাদের বিকাশের জন্য আমরা স্মার্ট লিডারশিপ একাডেমিও চালু করেছি।

বাংলাদেশ একটি গ্লোবাল ডিজিটাল কমপ্যাক্ট তৈরির বিষয়ে জাতিসংঘের কাজে আগ্রহী উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা আশা করি যে, এই গ্লোবাল কমপ্যাক্টে ডিজিটাল ও সীমান্ত প্রযুক্তির দায়িত্বশীল ও উৎপাদনশীল ব্যবহারের বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য স্পষ্ট নির্দেশনা থাকবে।

তিনি সাইবার-আক্রমণ, বিভ্রান্তিকর তথ্য ও অন্যান্য অপকর্মের বিরুদ্ধে সুরক্ষা ব্যবস্থা রাখার ওপর জোর দেন। তিনি বলেন, সম্মিলিতভাবে সাইবার-আক্রমণ, বিভ্রান্তমূলক তথ্য ও অন্যান্য অপকর্মের বিরুদ্ধে সুরক্ষা ব্যবস্থা রাখতে হবে।

ব্যবসায়ীর টাকার ব্যাগ ছিনতাই, গ্রেফতার ৪

জাতীয়, 5 October 2023, 423 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
নাটোরে এক ব্যবসায়ীর আড়াই লাখ টাকা ছিনতাইয়ে জড়িত সন্দেহে চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার রাতে বগুড়া শহরের রেলগেট এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গ্রেফতার চারজন হলেন- মো. জন্টু শেখ (৪৫), দেলোয়ার হোসেন (৬০), মো. হাবিব খান (৬০) ও সহিদ (৪৫)।

পুলিশ জানায়, গত ৭ আগস্ট বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের নিচাবাজার এলাকার সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখা থেকে আড়াই লাখ টাকা উত্তোলন করেন ব্যবসায়ী মো. নুরুল আমীন খাঁন (৫৫)। পরে টাকাসহ ব্যাগটি নুরুল আমীন তার মোটরসাইকেলের পেছনে রাখেন। এসময় টাকাভর্তি ব্যাগটি চুরি হয়ে যায়। এ ঘটনায় তিনি সদর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন।

এরপর পুলিশ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে কাজ শুরু করে। তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তার বুধবার রাতে বগুড়া শহরের রেলগেট এলাকা থেকে ওই চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ সুপার (এসপি) মো. তারিকুল ইসলাম বলেন, গ্রেফতার চারজনের কাছ থেকে চুরি যাওয়া ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। তারা আন্তঃজেলা চোরচক্রের সদস্য। এই চক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

জাপানি অর্থায়নে পদ্মাপারে নির্মিত হবে শেখ হাসিনা আর্ন্তজাতিক স্টেডিয়াম

জাতীয়, 19 October 2023, 338 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
অবশেষে জাপানের অর্থ সহায়তায় নির্মিত হতে যাচ্ছে মানিকগঞ্জের শিবালয়ের পাটুরিয়ায় পদ্মাপারের প্রস্তাবিত শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম।

সেই সঙ্গে উপজেলায় প্রায় ৪৬২ একর জমিতে প্রস্তাবিত বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল পরিদর্শন শেষে দুই হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন জাপানের ৩০ বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের মুখপাত্র ও প্রতিনিধি দলের প্রধান সুতোমো সাসাগাওয়া।

গতকাল বুধবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত জাপানের বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা শিবালয় উপজেলার বোয়াল ও পদ্মাপার পাটুরিয়া এলাকা পরিদর্শন করেন।

বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান জাপানের ফুটস্টুল কোম্পানি লিমিটেডের পরিচালক হায়াসি বলেন, জাপান ও বাংলাদেশ সুন্দর সম্পর্কের এক বন্ধন। আমরা এখানে বিনিয়োগ করতে চাই।

সংশ্লিষ্ট সূত্রমতে জানা গেছে, প্রায় এক হাজার কোটি টাকা দিয়ে স্টেডিয়ামটি তৈরি করে বাংলাদেশকে উপহার দিতে চায় প্রতিনিধি দল।

এ সময় বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাপানি প্রবাসী নেওয়াজ শরীফ জানান, শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামটি নির্মাণ করে বাংলাদেশকে উপহার দিতে চায় তারা। শুধু স্টেডিয়ামের জন্য প্রায় এক হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে আগ্রহী। আমরা চাই, মানিকগঞ্জে অর্থনৈতিক উন্নয়ন জোনে বিনিয়োগ করতে। পাশাপাশি টুরিজম সেক্টরে বিনিয়োগ করতে। এর আগেও তারা দুইবার এসে ঘুরে দেখেছেন স্থান দুটি।

পরিদর্শন শেষে জাপানের বাংলাদেশি প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের অন্যতম শরিফ নেওয়াজ সাংবাদিকদের জানান, আগামী অর্থবছরে শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের নির্মাণ কাজ শুরু করা হবে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে জাপান সরকারের ভালো সম্পর্ক রয়েছে। সরকারের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকারের সঙ্গে জাপানি বিনিয়োগকারীরা সংহতি প্রকাশ করেছে। প্রস্তাবিত এ স্টেডিয়ামের নির্মাণ কাজে শরিক হওয়ায় জাপানিরা গর্ববোধ করবেন।

শিবালয় উপজেলা প্রশাসনের নির্বাহী অফিসার মো. জাহিদুর রহমান বলেন, ৪৬২ একর জমিতে অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে তাদের। তাতে তারা আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

স্থানীয় এমপি নাঈমুর রহমান দুর্জয় বলেন, জাপানের ৩০টি প্রতিষ্ঠান এখানে বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তারা স্টেডিয়াম ও অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য বিনিয়োগ করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন জাপান সফর করেন, তখন তারা শিবালয়ের এই দুইটি স্থানে বিনিয়োগের কথা জানান। সেই অনুসারে তারা জায়গা পরিদর্শন করেছেন। বর্তমান সরকার মানিকগঞ্জের শিবালয়ের বোয়ালীতে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল ও পদ্মাপারে আন্তর্জাতিকমানের স্টেডিয়াম করার ঘোষণা দিয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- সংসদ সদস্য নাঈমুর রহমান দুর্জয়, প্রতিনিধি দলের প্রধান সুতোমো সাসাগাওয়া, হায়শি নবুয়া, জাপানের বাংলাদেশি প্রবাসী শরিফ নেওয়াজ, শিবালয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আনিসুর রহমান প্রমুখ।