৩ পরীক্ষায় গর্ভে যমজ শিশু, অপারেশনের পর একটি!

নবীনগর, 21 April 2023, 517 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটার থেকে লিজা নামের এক প্রসূতির এক নবজাতক গায়েব করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

২১ এপ্রিল শুক্রবার দুপুরে জেলা শহরের মুন্সেফপাড়া খ্রিষ্টিয়ান মেমোরিয়াল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

লিজা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার আলেয়াবাদ গ্রামের ফরহাদ আহমেদের স্ত্রী।

স্বজনদের দাবি, বেশ কয়েকটি পরীক্ষায় লিজার গর্ভে দুটি সন্তান আছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেলেও সিজারিয়ান অপারেশনের পর তাকে একটি নবজাতক দেখানো হয়েছে।

লিজার স্বামী ফরহাদ আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, আমার স্ত্রী প্রথমবারের মতো গর্ভবতী হলে উপজেলার স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক মেহেরুন্নেছার তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেসময় আলট্রাসনোগ্রাফিতে আমার স্ত্রীর গর্ভে দুটি সন্তান দেখা গেছে বলে জানান চিকিৎসকরা। সবশেষ ১৮ এপ্রিল করা আলট্রাসনোগ্রাফি রিপোর্টে গর্ভে দুটি সন্তান আসে। আজ আমার স্ত্রীর প্রসব ব্যথা ওঠে। যমজ শিশু গর্ভে থাকায় স্থানীয় চিকিৎসকরা ঝুঁকি না নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে হাসপাতালে এনে সিজার করাতে পরামর্শ দেন।

‘দুপুরে সাড়ে ১২টার দিকে তাকে শহরের খ্রিষ্টিয়ান মেমোরিয়াল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তাকে ডা. নওরিন পারভেজ আলট্রাসনোগ্রাফি করেন। ওই রিপোর্টেও দুটি সন্তান দেখা যায়। পরে তিনি নিজেই লিজাকে সিজারিয়ান অপারেশন করেন। এর কিছুক্ষণ পর হাসপাতালের লোকজন এসে জানান, আমার স্ত্রী একটি কন্যাসন্তান জন্ম দিয়েছেন। আর কোনো সন্তানের কথা তারা জানাতে পারেননি।’

ফরহাদ আহমেদ বলেন, ‘আমার প্রশ্ন, নবীনগরে আলট্রাসনোগ্রাফিতে দুটি সন্তানের কথা জানিয়েছে। এখানে তাদের চিকিৎসকও দুটি সন্তানের কথা জানান। তাহলে আমার আরেক সন্তান গেলো কোথায়?’

এ বিষয়ে খ্রিষ্টিয়ান মেমোরিয়াল হাসপাতালের চিকিৎসক নওরিন পারভেজ বলেন, ‘আমি দুই জায়গায় হার্টবিট পেয়েছি। অনেক সময় আমাদের দেখা এবং অনুমানে ভুল হতে পারে। সে অনুযায়ী আমি রিপোর্ট দিয়েছি। তবে সিজারিয়ানে গর্ভে একটি সন্তান পাওয়া গেছে।’

হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মার্শাল চৌধুরী বলেন, ‘আমরা রোগীর অভিভাবকদের বোঝানোর চেষ্টা করেছি এটা মেডিকেলের বিষয়। কিন্তু তারা চেঁচামেচি করে গরম করে দিয়েছে। বাধ্য হয়ে প্রশাসনকে ডেকেছি।’

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১ নম্বর শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শেহাবুর রহমান বলেন, শিশুর বাবার অভিযোগ, আলট্রাসনোগ্রাফি রিপোর্টে দুই শিশু ছিল। হাসপাতালের চিকিৎসকও আলট্রাসনোগ্রাফি রিপোর্টে দুই শিশু দেখেছেন। কিন্তু সিজারে এক শিশু পাওয়া গেছে। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি।

Leave a Reply

ফাইল ছবি

আশুগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবক নিহত

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জে উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে Read more

বিশ্ব মৃত্তিকা দিবস পালিত

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে মাটি ও Read more

সদর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্বভার গ্রহণ…

চলারপথে রিপোর্ট : গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে স্বাধীনতার Read more

আগামীকাল ডিসেম্বর মাসের টিসিবির পণ্য বিক্রি…

অনলাইন ডেস্ক : প্রতি মাসের বিক্রয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সরকারি Read more

‘সিআইডি’ ধারাবাহিকের ফ্রেডরিক্স মারা গেছেন

বিনোদন ডেস্ক : ভারতীয় গোয়েন্দা ভিত্তিক প্রথম টিভি সিরিজ ‘সি. Read more

চিনাইরে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার…

চলারপথে রিপোর্ট : মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড কুমিল্লা’র চেয়ারম্যান Read more

রাতের মধ্যেই দুর্বল হয়ে পড়বে মিগজাউম

অনলাইন ডেস্ক : ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম রাতের মধ্যেই দুর্বল হয়ে পড়বে। Read more

আমারই ফল্ট ছিল: ডলি সায়ন্তনী

অনলাইন ডেস্ক : পাবনা-২ (সুজানগর-বেড়ার একাংশ) আসনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের Read more

নির্বাচনী হলফনামা : শূন্য থেকে ৬৫…

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী Read more

নবীনগরে নিখোঁজের পরদিন নদীতে মিললো শিশুর…

চলারপথে রিপোর্ট : নবীনগর উপজেলায় মেঘনা নদীতে নিখোঁজের একদিন পর Read more

ফেসবুকে ট্যুর প্যাকেজ, বুকিং মানির নামে…

অনলাইন ডেস্ক : ইন্টেরিয়র আর্কিটেক্টের কাজ করেন নাহিদ হাজারিকা ইতি। Read more

নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করবেন জোটের প্রার্থীরা…

অনলাইন ডেস্ক : জোটের প্রার্থীরা নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করবেন বলে Read more

নবীনগরে মামুনুল হকসহ কারাবন্দি আলেমদের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন

নবীনগর, 4 August 2023, 259 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
মামুনুল হকসহ সকল কারাবন্দী আলেমদের মুক্তির দাবিতে নবীনগরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ ৪ আগস্ট শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর থানা গেইটের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে মুফতি বেলায়েতুল্লাহ কাসেমীর সভাপতিত্বে ও মাওলানা মেহেদী হাসান এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন হেফাজতে ইসলাম নবীনগর উপজেলার সভাপতি মাওলানা আমিরুল ইসলাম, সেক্রেটারী মাওলানা আব্দুল কাঈয়্যুম ফারুকী, নবীনগর দাওয়াতুল হক পরিষদের সেক্রেটারী হাফেজ মাওলানা মাকবুল হোসাইন, মাওলানা ফোরকান উদ্দিন নবীপুরী, হাফেজ মাওলানা সানাউল্লাহ, মাওলানা মুমিনুল হক ভূইয়া, মাওলানা ফজলুর রহমান, মাওলানা মোকতার হোসাইন আমিনী, মাওলানা ফরহাদ হোসাইন ফরিদী, মাওলানা আব্দুর রউফ, হাফেজ সাদ-উল্লাহ, মুফতি আবু সুফিয়ান, মাওলানা মোফাজ্জল, হাফেজ রাকিবুল ইসলাম তাজ, মাওলানা আনোয়ার হোসাইন, মোঃ নিয়ামুল হুদা, মাওলানা কাউছার, হাফেজ কামরুল ইসলাম, মাওলানা রবিউল্লাহ, মাওলানা খালিদ সায়ফুল্লাহ প্রমুখ।

বক্তারা আল্লামা মামুনুল হক সহ মাজলুম কারাবন্দি আলেমদের মুক্তির দাবি সহ আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশে পথচারী হাফেজ রেজাউল করিমকে নির্মমভাবে পিঠিয়ে হত্যার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানান, অভিলম্বে অপরাধীদের কে আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি করেন।

নবীনগরে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা পিআইবিকে তদন্তের নির্দেশ

নবীনগর, 3 March 2023, 497 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
নবীনগর পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নূরে আলমের বিরুদ্ধে চাঁবাবাজীর মামলা হয়েছে। ২ মার্চ বৃহস্পতিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামী করে নয়জনের বিরুদ্ধে একটি চাঁদাবাজীর মামলা করা হয়।

নবীপুর গ্রামের আবু কালামের স্ত্রী লিপি আক্তার বাদী হয়ে এ মামলাটি করেন। অন্যান্য আসামীরা হলেন, ওই ইউনিয়নের দড়িলাপাং গ্রামের আহম্মদ আলীর ছেলে হাদিস মিয়া, জাহের আলী মেম্বারের ছেলে শাহ জালাল, কবির মিয়া, সাইফুল মিয়া, মুর্শিদ মিয়া, রুস্তম আলী ছেলে হযরত আলী, শাহ কামালের স্ত্রী সালেহা বেগম, মৃত রুস্তম আলীর ছেলে আক্তার হোসেন।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে ‘পিবিআই’কে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পশ্চিম ইউনিয়নে গত ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নবীপুর গ্রামের কালাম মিয়ার সাথে চেয়ারম্যান নুর আলম ওরুফে নুরে আজ্জম ও তার গ্রুপের সাথে বিরোধসহ বিভিন্ন বিষয়ে মামলা মোকদ্দমা চলে আসছিল। তারই জের ধরে গত ২০ জানুয়ারি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে তার বাহিনী লিপি বেগমও তার স্বামী কালামকে পথে আটকিয়ে ৫ লাখ টাকা দাবি করে। টাকা দিতে অস্বীকার করলে তাদের মারধরসহ শ্রীলতাহানী ঘটায় এবং মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে জোর পূর্বক ২ ফর্দ নন জুডিসিয়াল খালি ষ্ট্যাম্প তাদের দু’জনের স্বাক্ষর নেয়। এ ঘটনা ‘কাউকে জানালে বা মামলা মোকদ্দমা করলে তার স্বামীকে খুন করে মেঘনা নদীতে ভাসাইয়া দিবে’ প্রকাশ্যে হুমকি প্রদান করে চলে যায়।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান নূরে আলম তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর মামলার বিষয়টি অবগত নয় জানিয়ে কোন বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

বাঁচার আকুতি অসহায় হামিদার

নবীনগর, 28 December 2022, 566 Views,

একটি কিডনি বিকল, নেই একটি পা

স্টাফ রিপোর্টার:
একটি কিডনি বিকলসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে অর্থাভাবে বিনাচিকিৎসায় মৃত্যুর প্রহর গুনছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর পৌর এলাকার খাজানগর গ্রামের হামিদা বেগম। জীবনের শেষপ্রান্তে এসে অসহায় এ হামিদা উন্নত চিকিৎসার সাহায্যের জন্য বিত্তশালীদের কাছে ঘুরেও কোন সুফল পাচ্ছেন না। অভাবের সংসারে কোনমতে জীবন যাপন করলেও উন্নত চিকিৎসা করাতে পারছেন না হামিদা বেগম। অনেক কস্টে অন্যের দেয়া খাবার খেয়ে, কখনওবা একাধারে কয়েকদিন শুধু পানি পান করে কোনমতে জীবন যাপন করেছেন হামিদা সহ তার ৪ কন্যা সন্তান। এছাড়াও একটি কিডনি বিকল হয়ে গেছে। কেটে ফেলা হয়েছে তার ডান পা। তাকে বাঁচাতে উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন। যা তার পরিবারের পক্ষে কোনভাবেই সম্ভব নয়। এখন তিনি মৃত্যু যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন। এদিকে স্ত্রীর চিকিৎসার অর্থ জোগাতে এখানে-সেখান ছুটে বেড়াচ্ছেন অসহায় হামিদার স্বামী বৃদ্ধ লিলু মিয়া। ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে বার্ধক্যজনিত কারণে তিনিও উপার্জনহীন।

লিলু মিয়া বলেন, একসময় শরীরে শক্তি ছিল, পরিশ্রম করতে পারতাম। এখন বয়স হইছে, কাজ ঠিকমতো করবার পাই না। এমনিতে আমাদের অভাবের সংসার। আমাদের কোন ছেলে সন্তান নেই, চার মেয়েকে নিয়ে কোনভাবে জীবন সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছি। তার মধ্যে আমার স্ত্রীর হামিদা বেগম অসুস্থতাজনিত কারণে, অর্থের অভাবে তার সঠিক চিকিৎসা করাতে পারতেছি না।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে হামিদার প্রতিবেশীরা জানান, প্রতিমাসে ডায়ালাইসিস করা নয়তো কিডনি প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে হামিদাকে বাচাতে হবে। কিডনি প্রতিস্থাপন করতে ছয়-সাত লাখ টাকা প্রয়োজন। প্রতিমাসে ডায়ালাইসিস করতে প্রয়োজন ২০-২৫ হাজার টাকা।যা তাদের পক্ষে ব্যয় বহন করা সম্ভবপর হবে না।

তাই হামিদাকে বাঁচাতে সমাজের বিত্তবানদের কাছে সহযোগিতা চান তারা। মৃত্যুপথযাত্রী হামিদাকে সহযোগীতার জন্য অনুরোধ করেছেন এলাকাবাসী। সাহায্য পাঠানোর জন্য হামিদার মেয়ে ফাতেমা বেগম যোগাযোগ ও বিকাশ নম্বর ০১৬০৯৩৯৭৭৪২।

নবীনগরের ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের স্কুলমুখী করার জন্য শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করলেন ইউএনও

নবীনগর, 6 February 2023, 565 Views,

নবীনগর প্রতিনিধি :
নবীনগরে করিম শাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক প্রাথমিক ও ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের ক্ষার্থীদের মাঝে আজ ৬ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিদ্যালয়ের প্রাক প্রাথমিক শ্রেণীকক্ষে শিশু শিক্ষার্থীদের স্কুলমুখী করার জন্য সুন্দর পড়ার টেবিল এবং স্কুল ব্যাগ বিতরণ করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একরামুল সিদ্দিক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একরামুল সিদ্দিক জানান, শিক্ষার্থীদের মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করতে প্রতিটি শিক্ষকের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। করোনা মহামারীর কারণে আমরা শিক্ষা অনেক ব্যাথা কষ্ট হয়েছি এখন আমাদের সেই সময় এবং সুযোগ এসেছে আমাদের দক্ষ মানব সম্পদ তৈরীর মাধ্যমে আগামী বাংলাদেশকে উন্নত বাংলাদেশে রূপান্তর করার। তিনি বলেন, তাদের মানুষের মতো মানুষ করতে হলে এবং তাদের সুশিক্ষিত করে গড়ে তুলতে শিক্ষকদের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, আপনাদের শিক্ষকদের পরিশ্রমের মাধ্যমে প্রতিটি পরিবার থেকে যদি একজন ছেলে মেয়েও মানুষের মতো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলা যায়, তাহলেই সেই পরিবার, সমাজ ও দেশ আলোকিত হবে। তাই ভালো ফলাফলের পাশাপাশি ছেলেমেয়েদের ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষকদের প্রতি আহব্বান জানান তিনি। এছাড়াও এসময় তিনি বিদ্যালয়ের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজগুলো পর্যায়ক্রমে সম্পন্ন করে দিবেন বলেও জানান। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাকিল রেজার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল সরকার, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এস কে হেলাল, উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মনসুর আলী, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি এটিএম রেজাউল করিম সবুজ, যমুনা টিভির ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি সাংবাদিক মোঃ শফিকুল ইসলাম, মডেল প্রেসক্লাব সভাপতি মোঃ আবু কাওছার, ডোপা কান্দা প্রাথমিক বিদ্যালযয়ের প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান খান সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাজিয়া খাতুন।

আলোচনা সভার শেষে শিক্ষার্থীদের মাঝে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পক্ষ থেকে স্কুল ব্যাগ ও টেবিল প্রদান করা হয়।

নবীনগরে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ

নবীনগর, 20 February 2023, 598 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
নবীনগরের শিবপুরে সুর সম্রাট আলাউদ্দিন খাঁ ডিগ্রি কলেজে আজ ২০ ফেব্রুয়ারি সোমবার বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও জ্যেষ্ঠ প্রভাষক (বাংলা) মোহসিন সরকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজের গভর্ণিং বডির সভাপতি কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা মো. আরিফুল ইসলাম ভূইয়া টিপু।

বিশেষ অতিথি ছিলেন সুবোধ চন্দ্র চৌধুরী, মো. আশরাফ হোসেন আকছির, মো. সোহরাওয়াদ্দিন চৌধুরী, যুবায়েরুল হক মৃধা, মো. মাইনুদ্দিন, মো. মোখলেছুর রহমান , মো. মোহসীন সরকার, মো. আনেয়ার হোসেন, রাজিয়া বেগম, স্বপন চন্দ্র চৌধুরী, মো.মোসলেম উদ্দিন।

বক্তব্য রাখেন শিবপুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হোসাইন কবির ও সহকারী প্রধান শিক্ষক (অব.) খবির উদ্দিন প্রমুখ।

সকালে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন খেলায় তাদের মেধা ও যোগ্যতার মাধ্যমে বিজয় হওয়ার গৌরব অর্জন করায় বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।