জেএসসি-জেডিসি হবে না, পরীক্ষা হবে ক্লাসে

জাতীয়, 20 June 2023, 506 Views,
ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক :
জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা আর হবে না। নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ফলাফলের ভিত্তিতে অষ্টম শ্রেণি পাসের সনদও দেবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। তবে আগের নিয়ম অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ডে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

আজ ২০ জুন মঙ্গলবার বিকেলে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. ফরহাদুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, জেএসসি ও জেডিসির আগের মতো বোর্ড পরীক্ষা হবে না। নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তাদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে সনদ দেবে। ধারাবাহিক মূল্যায়ন ও পরীক্ষা নেওয়া হবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। এর ভিত্তিতে ফলাফল দেওয়া হবে, সনদও দেওয়া হবে।

তবে সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ও মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডে অষ্টম শ্রেণিতে শিক্ষার্থী রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। যারা অষ্টম শ্রেণি পাসের পর কোনো কোর্সে নিযুক্ত হতে চাইবে, তাদের জন্য সনদ ও রেজিস্ট্রেশন প্রয়োজন পড়বে। সে কারণে রেজিস্ট্রেশন করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সরকার আগেই অষ্টম শ্রেণি ও সমমানের ক্লাসের জন্য প্রচলিত জেএসসি এবং জেডিসি পরীক্ষা বাতিল করে। এছাড়া নতুন শিক্ষাক্রমে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা থাকবে না। ২০২৪ সাল থেকে অষ্টম ও নবম শ্রেণির পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে নতুন শিক্ষাক্রমের আওতায়।

বৈঠকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোলেমান খান, আন্তশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. ফরহাদুল ইসলাম, মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান, বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক কায়সার আহমেদ, কারিগরি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. মহসিনসহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সর্বজনীন পেনশন স্কিম উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সেলিম Read more

আখাউড়ায় সড়কে পাথর রাখায় ট্রাক খাদে,…

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়ায় নির্মীয়মাণ একটি সেতুর বিকল্প Read more

অবৈধ ভাবে মাটি কাটার দায়ে দুজনকে…

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়ায় ভেকু দিয়ে কৃষি জমি Read more

সরাইলে প্রীতি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট অনুষ্ঠিত

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার কাটানিশার গ্রামে গতকাল Read more

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আন্তর্জাতিক শব্দ সচেতনতা দিবস উদযাপিত

চলারপথে রিপোর্ট : আজ ২৪ এপ্রিল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় আন্তর্জাতিক শব্দ Read more

বাঞ্ছারামপুর উপজেলা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন…

চলারপথে রিপোর্ট : তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিতব্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুর উপজেলা Read more

পিকআপ ভ্যানের বডিতে মিলল ৪০ কেজি…

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৪০ কেজি গাঁজাসহ একজনকে আটক করেছে Read more

থাইল্যান্ড পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছয়দিনের সফরে থাইল্যান্ডে পৌঁছেছেন। Read more

লোহিত সাগরে নৌকা ডুবে ৩৩ জন…

অনলাইন ডেস্ক : লোহিত সাগরের জিবুতি উপকূলে অভিবাসীদের বহনকারী একটি Read more

বাংলাদেশ সফরে আসছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল

অনলাইন ডেস্ক : ৫ ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে Read more
ফাইল ছবি

২০২৫ থেকে এসএসসি পরীক্ষা হবে ৫…

অনলাইন ডেস্ক : নতুন শিক্ষাক্রম অনুযায়ী ২০২৫ সালে এ পরীক্ষা Read more
ফাইল ছবি

থাইল্যান্ডের পথে প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক : ছয় দিনের সরকারি সফরে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে যাচ্ছেন Read more

স্বামীর দায়ের কোপে হাত-পা বিচ্ছিন্ন আকলিমা মারা গেলেন

জাতীয়, 26 August 2023, 338 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে স্বামীর দায়ের কোপে হাত-পা বিচ্ছিন্ন হওয়া সেই আকলিমা খাতুন (৩৫) মারা গেছেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট নেওয়ার পথে আজ ২৬ আগস্ট শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে হবিগঞ্জের আউশকান্দি নামক স্থানে তার মৃত্যু হয়।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে স্বামীকে ছেড়ে অন্যত্র বিয়ের করার অভিযোগে আকলিমা খাতুন (৩৫) নামে ওই গৃহবধূর হাত-পা কেটে দেওয়ার ঘটনা ঘটে।

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার গাজিপুর ইউনিয়নের সোনাচং গ্রামের খেলার মাঠ সংলগ্ন রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার মাত্র ৩ ঘণ্টার ব্যবধানে ওই গৃহবধূর মৃত্যু হলো।

গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে সিলেট নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল।

এ ঘটনায় ওই নারীর স্বামী সুজন মিয়াকে (৩৮) আটক করেছে পুলিশ। সুজন ওই উপজেলার গাজিপুর ইউনিয়নের সোনাচং এলাকার আহম্মদ আলীর ছেলে।

মা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা

জাতীয়, 11 August 2023, 394 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
বাগেরহটের শরণখোলায় একই সঙ্গে মা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এই হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে আজ ১১ আগস্ট শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার রায়েন্দা ইউনিয়নের উত্তর রাজাপুর গ্রামে। নিহত পাপিয়া বেগম (৩৫) ও তার মেয়ে সাওদা জেমীকে (৫) ঘরে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় হত্যাকারীরা। ঘটনাস্থলেই মারা যায় মেয়েটি। গুরুতর অবস্থায় মা পাপিয়াকে উদ্ধার করে রাত ৮টার দিকে হাসপাতলে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ রাত ৯টার দিকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার করেছে। তবে কি কারণে কে বার কারা এই হত্যাটি ঘটেছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় গ্রাম পুলিশ স্বপন কুমার বালী জানান, খবর পেয়ে পাপিয়া বেগমকে তার ঘর থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ সময় বাড়ির কিছু দূরে পড়ে থাকা অবস্থায় মেয়ে সাওদা জেমীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশকে জানানো হয়।

গ্রাম পুলিশ স্বপন বালী জানান, পাপিয়ার স্বামী আবু জাফর হাওলাদার কাজের সুবাদে ঢাকায় থাকেন। তার ছেলে জিহাদ (১৫) পিরোজপুরের মঠবাড়িয়াতে একটি দোকানে কাজ করে। মেয়েকে নিয়ে পাপিয়া বাড়িতে থাকতেন। কি কারণে এই ঘটনা ঘটেছে তা বোঝা যাচ্ছে না।

রায়েন্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজমল হোসেন মুক্তা জানান, তার ইউনিয়নের ১ নম্বর উত্তর রাজাপুর ওয়ার্ডে মা-মেয়ের জোড়া হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে। পারিবারিক কারণে এটি ঘটতে পারে বলে ধারণা করছেন তিনি।

শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. আশফাক জানান, হাসপাতালে আনার আগেই পাপিয়া বেগমের মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখম পাওয়া গেছে।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকরাম হোসেন বলেন, মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।

অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেফতার ৮

জাতীয়, 13 September 2023, 313 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে মাদক কারবারিদের হামলায় এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পাশাপাশি দেশীয় অস্ত্র ও ১৮ বোতল ভারতীয় মাদসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করেছেন হালুয়াঘাট থানা পুলিশ। ১২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দিবাগত রাতে অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন, গাজিরভিটা ইউনিয়নের দক্ষিণ লামুক্তা গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাক এর পুত্র মনির হোসেন ,কবীর হোসেন, জাকির হোসেন ও আমীর হোসেন এবং মৃত মরজত আলীর পুত্র ইমান আলী, মৃত সেকান্দর আলী মুন্সী এর পুত্র আরশাদ মিয়া এবং বালিচান্দা গ্রামের মৃত নুরুল আমিন এর পুত্র সুমন মিয়া ও বালিচান্দা কচুন্দরা গ্রামের আব্দুল খালেকের পুত্র আলম।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ময়মনসিংহ জেলার পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা’র নির্দেশক্রমে ও থানা অফিসার ইনচার্জ সুমন চন্দ্র রায় এর নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হালুয়াঘাট থানার উপ-পুলিশ পরির্দশক মাহাবুবুল আলম, শরিফুল ইসলাম, উমর ফারুক সঙ্গীয় ফোর্সের সহযোগিতায় পৌরশহরের হালুয়াঘাট-ধোবাউড়া সড়কের আকনপাড়া জৈনক শফিক মাস্টারের বাড়ির সামনে পাকা রাস্তার উপর থেকে মাদক কারবারি সুমন মিয়া ও আলমকে ১৮ বোতল ভারতীয় মদসহ গ্রেফতার করেন ।

পরে গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারিদের তথ্যমতে ও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাজিরভিটা ইউনিয়নের দক্ষিণ লামুক্তা গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাক এর পুত্র মনির হোসেন এর বাড়িতে আরো মাদকদ্রব্য উদ্ধারের জন্য থানা পুলিশ অভিযান পরিচালনা করতে গেলে উল্লেখিত মাদক কারবারিরা দেশীয় অস্ত্রসহ পুলিশের উপর অর্তিকিত হামলা চালায়।

এসময় মাদক কারবারিদের হামলায় পুলিশ সদস্য শহিদুল ইসলাম আহত হয়। পরে মাদক কারবারিরা একটি পিকআপ গাড়ীতে করে পালানোর সময় ধাওয়া করে পুলিশ ভাষা শহীদ স্কুল এন্ড কলেজের সামনে পাকা রাস্তার উপর থেকে তাদের গ্রেফতার করেন। অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে আহত পুলিশ সদস্য শহিদুলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য আহত পুলিশ সদস্য শহীদুল ইসলামকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন চন্দ্র রায় জানান, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও সমাজ থেকে মাদক র্নিমূল করতে থানা পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এর ধারাবাহিকতায় ১৮ বোতল ভারতীয় মাদসহ মাদক কারবারিদের গ্রেফতার করে মামলা দায়েরের পর বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে। উদ্ধারকৃত মাদকের আনুমানিক মূল্য ৭২ হাজার টাকা । মাদক কারবারিদের গ্রেফতার করতে গিয়ে মাদক কারবারিদের হামলায় এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন । এ ঘটনায় একটি মামলা রুজু করা হয়। অপরাধ নির্মূলে থানা পুলিশ জিরো টলারেন্স নীতিতে কাজ করে যাচ্ছে।

ঢাকা মেডিকেলে মোবাইল চুরি করতে গিয়ে চার নারী আটক

জাতীয়, 14 November 2023, 209 Views,

অনলাইন ডেস্ক
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বহির্বিভাগ থেকে মোবাইল চুরির সময় চার নারীকে আটক করেছেন আনসার সদস্যরা।

আজ ১৪ নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। ওই চার নারীকে আটক করার পর হস্তান্তর করা হয়েছে শাহবাগ থানায়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল আনসারের প্লাটুন কমান্ডার (পিসি) উজ্জ্বল ব্যাপারী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বহির্বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনদের কাছ থেকে কৌশলে মোবাইল চুরি করতেন আটক চার নারী। আজ মোবাইল চুরি করার সময় এক নারীকে হাতেনাতে ধরে ফেলে আমাদের আনসার সদস্যরা। পরে ওই নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের পর সিসি ফুটেজ দেখে আরও ৩ জনকে আমরা ধরি।

তিনি বলেন, বিষয়টি হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হককে জানানো হলে তিনি পুলিশকে জানান। পরে শাহবাগ থানায় চার নারীকে হস্তান্তর করা হয়।

এবারও ১২০০ ডলার সঙ্গে নিতে পারবেন হজযাত্রীরা

জাতীয়, 2 May 2023, 718 Views,
ফাইল ছবি

চলারপথে ডেস্ক :
সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজের সব ধরনের খরচের বাইরে একজন যাত্রী এবারও ১২০০ ডলার বা সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সঙ্গে নিতে পারবেন। গত বছরও একই পরিমাণ অর্থ সঙ্গে নেওয়ার সুযোগ ছিল। এ ছাড়া বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রতি হজযাত্রীর সৌদি পর্বের খরচ বাবদ এজেন্সিগুলো সর্বনিম্ন ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৫২৯ টাকা পাঠাবে।

এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে আজ ২ মে মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক একটি সার্কুলার জারি করে ব্যাংকগুলোতে পাঠিয়েছে।

সরকারি ব্যবস্থাপনায় এবার হজে যেতে খরচ ধরা হয়েছে ৬ লাখ ৮৩ হাজার ১৫ টাকা। গত বছর যা ৪ লাখ ৬২ হাজার ১৫০ টাকা থেকে ৫ লাখ ২৭ হাজার ৩৪০ টাকা ছিল। সরকারি প্যাকেজের তুলনায় কিছু কম খরচ ধরে বেসরকারি হজ প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে।

সার্কুলারে উল্লেখ করা হয়েছে, সরকারি–বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে আগ্রহীদের প্রত্যেকে ১২০০ ডলার সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা সঙ্গে নিতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে ভ্রমণ কোটা প্রযোজ্য হবে না। এ ছাড়া বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যেতে আগ্রহী যাত্রী প্রতি সৌদি পর্বের সব ধরনের ব্যয় বাবদ সর্বনিম্ন ৪ লাখ ৪৩ হাজার ৫২৯ টাকার সমপরিমাণ ১৫ হাজার ৬২৩ সৌদি রিয়াল দেশটিতে পাঠাতে হবে।

সব ধরনের বিধিবিধান অনুসরণ এবং নামের তালিকা দাখিল করে নিজ এজেন্সির মাধ্যমে এ অর্থ পাঠানোর ব্যবস্থা করতে ব্যাংকগুলোকে বলা হয়েছে।

হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম বলেন, মক্কা–মদিনায় বাড়ি ভাড়া, সেখানে যাত্রায়াত, খাওয়াসহ অন্যান্য খরচ মেটানোর জন্য সৌদি পর্বের খরচ পাঠাতে হবে। এর বাইরে বিমান ভাড়া বাবদ যাত্রী প্রতি এজেন্সিগুলোর খরচ রয়েছে এক লাখ ৯৭ হাজার ৭৯৭ টাকা। আর প্রাক নিবন্ধন বাবদ খরচ ৩১ হাজার টাকা।

কোন দেশ থেকে কতজন হজে যেতে পারবেন তা ঠিক করে দেয় সৌদি সরকার। এবার বাংলাদেশের জন্য এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জনের কোটা দেওয়া হয়। তবে হজ খরচ বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন কারণে ৭ দফা সময় বাড়িয়েও কোটা পূরণ হয়নি। এ কারণে ৪ হাজার মতো কোটা ফেরত দিচ্ছে বাংলাদেশ।

করোনার কারণে এর আগে ২০২০ ও ২০২১ সালে বিদেশ থেকে হজে যাওয়া বন্ধ ছিল। গত বছর কোটার আলোকে ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন হজ পালনের সুযোগ পান। এর আগে ২০১৯ সালে হজে গিয়েছিলেন এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ বাংলাদেশি। সম্প্রতি কোনো বছর কোটা ফেরতের ঘটনা ঘটেনি।