শেখ কামালের আজ ৭৪তম জন্মবার্ষিকী

জাতীয়, 5 August 2023, 310 Views,

অনলাইন ডেস্ক :
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৪তম জন্মবার্ষিকী আজ শনিবার। ১৯৪৯ সালের এই দিনে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় তাঁর জন্ম।
সৃজনশীল ক্রীড়া, নাট্য ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব এবং আবাহনী ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা শেখ কামাল মাত্র ২৬ বছর বয়সে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট এক দল বিপথগামী সেনাসদস্যের গুলিতে সপরিবারে বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে শহীদ হন। ওই হত্যাকাণ্ডের প্রথম শহীদ তিনি। বঙ্গবন্ধুর ছেলে– এ পরিচয় দেওয়ার পর মেজর (বরখাস্ত) বজলুল হুদা তার স্টেনগান দিয়ে তাঁকে হত্যা করে বলে পরবর্তী সময়ে জানা যায়। ছাত্রলীগের একজন নিবেদিত, সংগ্রামী ও আদর্শবাদী কর্মী হিসেবে ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান ও একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে বীরোচিত ভূমিকা পালন করেন তিনি।

শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ সাহাবুদ্দিন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণী দিয়েছেন। পৃথক বাণীতে তারা বহুমাত্রিক, অনন্য সৃষ্টিশীল প্রতিভার অধিকারী, তারুণ্যের দীপ্ত প্রতীক শেখ কামালের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান।

দিনটি উপলক্ষে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বিস্তারিত কর্মসূচি উদযাপিত হবে। প্রধানমন্ত্রী আজ সকাল সাড়ে ৯টায় তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রকাশিত স্মারক ডাকটিকিট, উদ্বোধনী খাম ও সিলমোহর অবমুক্ত করবেন। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সকাল ১০টায় রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উদযাপন ও শেখ কামাল জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ পুরস্কার-২০২৩ প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থেকে বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগ ও সহযোগী-ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলো আজ সকাল ৮টায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে আবাহনী ক্লাব প্রাঙ্গণে শহীদ শেখ কামালের প্রতিকৃতি এবং সকাল সোয়া ৯টায় বনানী কবরস্থানে তাঁর কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন, কোরআনখানি, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করবে।

Leave a Reply

যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম…

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘সরকার যেকোনো পরিস্থিতি Read more

বঙ্গবন্ধু ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা ও…

চলারপথে রিপোর্ট : অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ সাইফুল ইসলাম Read more

এনআইডি জালিয়াতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি…

অনলাইন ডেস্ক : জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সংক্রান্ত দুর্নীতি দমনে নির্বাচন Read more

আজ জাতীয় ভোটার দিবস

অনলাইন ডেস্ক : জাতীয় ভোটার দিবস আজ ২ মার্চ শনিবার Read more

ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের মাধ্যমিকে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ…

অনলাইন ডেস্ক : শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেছেন, সরকার দেশের Read more

দ. কোরিয়ায় বাঞ্জি জাম্পের সময় নারীর…

অনলাইন ডেস্ক : দক্ষিণ কোরিয়ায় বাঞ্জি জাম্পিং প্ল্যাটফরম থেকে পড়ে Read more

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গুজবরোধে ফেসবুক ব্যবহারে সচেতন হওয়ার…

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া গুজব Read more

গাছের ডালে ঝুলিয়ে কিশোরকে নির্যাতন, মূল…

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ উপজেলায় দিদার হোসেন (১৪) Read more

সুহিলপুরে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ গেল অটোরিকশার…

চলারপথে রিপোর্ট : সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা সিএনজি চালিত অটোরিকশাকে Read more

নাসিরনগরে “মিট দ্যা চিলড্রেন” শীর্ষক কর্মশালা

চলারপথে রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরে প্রান্তিক শিশুদের অধিকার, উন্নয়ন Read more

ভারত থেকে দেশে ফিরলেন নারী শিশুসহ…

চলারপথে রিপোর্ট : বিভিন্ন সময় ভারতে গিয়ে আটকে পড়া ১০ Read more

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডেপুটি গভর্ণর হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার…

চলারপথে রিপোর্ট : সম্প্রতি দুজন ডেপুটি গভর্ণর নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ Read more

অন্নদা উৎসবে সুখস্মৃতিতে ভাসলেন অভ্যাগতরা

জাতীয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, 25 December 2022, 1329 Views,

“অন্নদা উৎসব ২০২২” অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন বিদ্যাপীঠ অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৯৫৪ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী উপলক্ষ্যে গতকাল রোববার দিনভর “অন্নদা উৎসব-২০২২” অনুষ্ঠিত হয়েছে। উৎসব উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, স্মৃতিচারণ, মধ্যাহ্নভোজ, সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় মেতে উঠেন প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা।

এ উপলক্ষ্যে বিদ্যালয়ে প্রাঙ্গনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র, অর্থনীতিবিদ ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ডঃ ওয়াহিদ উদ্দিন মাহমুদ বলেন, বহু বছর পর এই পরিণত বয়সে এসে আজকে মিশ্র অনুভূতি হয়েছে। এ স্মৃতি সুখ স্মৃতি। নস্টালজিয়ায় স্মৃতিকাতর হয়ে তিনি গেয়ে ওঠেন রবীন্দ্রনাথের গান ‘পুরনো সেই দিনের কথা ভুলবে কিরে আয়…’ তিনি স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন, আমাদের সময়ে নিয়মিত অ্যাসেম্বলি হতো না। শিক্ষা বিভাগের কোন কর্তা ব্যক্তি, মন্ত্রী, ডিসি কিংবা বিশিষ্ট ব্যক্তিরা আসলে অ্যাসেম্বলি হতো। একদিন একজন অতিথির প্রশ্নের উত্তর দিলে বিদ্যালয়ের শ্রদ্ধেয় শিক্ষক ওয়াহিদুন্নবী খান (শিশু মিয়া) স্যার তা লক্ষ্য করে পরে আমাকে বলেছিলেন গুরুজন কিংবা বিশিষ্ট কোন লোকের সাথে পকেটে হাত রেখে কথা বলতে নেই। স্যার নেই কিন্তু তার কথা এখনো মনে আছে।

অন্নদা উৎসবে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্মৃতিচারণ করেন, সাবেক সচিব ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এস.এম শফি সামি, সাবেক নির্বাচন কমিশনের সচিব ও কমিশনার স.ম জাকারিয়া, সাবেক শিক্ষার্থী ও নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আতিকুল ইসলাম, সাবেক রাষ্ট্রদূত হুমায়ুন কবীর, লেঃ জেঃ সাজ্জাদুল হক, পিএসসির সদস্য ডঃ দেলোয়ার হোসেন, অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমান সিদ্দিকী, প্রবীণ আইনজীবী এ.কে.এম শামসুদ্দিন, সাবেক পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি, সাবেক পৌর মেয়র হেলাল উদ্দিন, উৎসবের আহবায়ক ডাঃ আবু সাঈদসহ শতাধিক শিক্ষার্থী।
উৎসবে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ শাহগীর আলম, পুলিশ সুপার সাখাওয়াৎ হোসেন। বক্তব্য রাখেন অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদা নাজমীন। অন্নদা উৎসবে উপস্থিত ছিলেন ৫৪ ব্যাচের শিক্ষার্থী ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর আসন থেকে পাঁচবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট হারুণ আল রশীদ। সন্ধ্যার পর অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠে আয়োজিত কনসার্টে ব্যান্ড সঙ্গীত পরিবেশন করে ব্যান্ডদল মাইলস।


উৎসবে অংশগ্রহণ করতে আসা বিভিন্ন ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা বলেন, এই উৎসবটি সকলের অংশগ্রহণে একটি মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে। বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এসে যেন সকলেরই পুরানো স্মৃতি ভেসে উঠছে। আমাদের অনেক বন্ধু সুদূর অ্যামেরিকা, অস্ট্রোলিয়াসহ বিভিন্ন দেশ থেকে ছুটে এসেছে এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার জন্য। সবাই সবার পুরানো বন্ধুদের পেয়ে আনন্দে মেতে উঠেছে। আয়োজকদের কাছে সবার দাবি এই ধরনের মিলন মেলা যেন প্রতিবছরই হয়।

উৎসবের প্রথম ধাপে রোববার সকাল ৯টায় অন্নদা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের একটি শোভাযাত্রা বের করে। শোভাযাত্রাটি বিদ্যালয় থেকে বের হয়ে শহরের লোকনাথ উদ্যান, পুরাতন জেল রোড-কুমারশীল মোড়-হাসপাতাল রোড- পুরাতন কাচারী পাড়-হালদারপাড়া অতিক্রম করে পুনরায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। শোভা যাত্রায় বিদ্যালয়ের ছাত্ররা বাদ্য যন্ত্র বাজিয়ে, নেচে-গেয়ে আনন্দ উৎযাপন করেন।

ডাক্তার সেজে চিকিৎসা দিচ্ছিল ফটোগ্রাফার

জাতীয়, 3 October 2023, 232 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
ফেনী জেনারেল হাসপাতালে প্রতারণা করার সময় আবু সালেহ মোহাম্মদ মারজান (২০) নামে এক ভুয়া চিকিৎসককে আটক করেছে রোগীর স্বজনরা। সে ফটোগ্রাফার হিসেবে স্থানীয় একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠানে কাজ করে।

গতকাল সোমবার হাসপাতালের শিশু বিভাগ থেকে তাকে আটক করা হয়েছে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতালে ডাক্তার সেজে বেশ কিছুদিন রোগীদের সাথে প্রতারণা করে আসছিলো মারজান। প্রতিদিনের ন্যায় সোমবারও হাসপাতালের শিশু বিভাগে রোগীদের সাথে প্রতারণা ও হয়রানি করে সে। একজন সচেতন রোগীর স্বজন মারজানের প্রতারণা ধরতে পারে। এমন সময় হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক আসার খবর পেয়ে পালানোর সময় দারোয়ান আব্দুস সাত্তার ও বাবুর্চি সুমনসহ রোগীর স্বজনরা তাকে আটক করে হাসপাতালে কর্তব্যরত পুলিশে সোপর্দ করে।

হাসপাতাল পুলিশের ইনচার্জ জসিম উদ্দিন জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে নানাবিধ ভুয়া তথ্য দেয়। পরে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তাকে ফেনী মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়।

হাসপাতালের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (আরএমও) শাহীন নুর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, উর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশে আইনানুগ ব্যবস্থার জন্য তাকে থানায় পাঠানো হয়েছে।

ফেনী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহীদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, এক ভুয়া ডাক্তারকে পুলিশে সোপার্দ করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তার বিরুদ্ধে প্রতারণা মামলায় আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ফেনীর আমলী আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

প্রথম মন্ত্রিসভা বৈঠকে যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

জাতীয়, রাজনীতি, 15 January 2024, 107 Views,

অনলাইন ডেস্ক :
নতুন সরকার গঠনের পর প্রথম মন্ত্রিসভা বৈঠকে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীদের একগুচ্ছ নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ ১৫ জানুয়ারি সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে নতুন সরকারের প্রথম আনুষ্ঠানিক মন্ত্রিসভা বৈঠক হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন।

বৈঠকের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, মন্ত্রিপরিষদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রী তার তরফ থেকে মন্ত্রীদের নির্দেশনা দিয়েছেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও বলেন, সবচেয়ে বেশি যে বিষয়টির ওপর উনি (প্রধানমন্ত্রী) জোর দিয়েছেন তা হলো মুদ্রাস্ফীতি এবং দ্রব্যমূল্য। মুদ্রাস্ফীতি ও দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের জন্য তিনি সর্বাত্মক প্রচেষ্টা নিতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীদের নির্দেশনা দিয়েছেন। বিশেষত, আগামী রমজানে যেন দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে থাকে এবং রমজানে যেসব পণ্যের চাহিদা বাড়ে, সেগুলোর সরবরাহ পরিস্থিতি যেন স্বাভাবিক থাকে সে ব্যাপারেও নির্দেশনা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নির্বাচনী যে ইশতেহার দেওয়া হয়েছিল, সে মোতাবেক সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ইশতেহারে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত বিষয়গুলোকে ভিত্তি করে যেন কর্মপরিকল্পনা নেওয়া হয় এবং সেই কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ, বাস্তবায়ন ও মনিটরিং করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকারপ্রধান কৃষি উৎপাদনের কথা বলেছেন জানিয়ে মাহবুব হোসেন বলেন, কৃষি উৎপাদন যেন কোনোভাবেই ব্যাহত না হয়, সেদিকে নজর রাখতে বলেছেন। কৃষিপণ্য সংরক্ষণে আরও সংরক্ষণাগার তৈরির নির্দেশনা দিয়েছেন। স্মার্ট বাংলাদেশের চারটি স্তম্ভ- স্মার্ট সিটিজেন, স্মার্ট সরকার, স্মার্ট অর্থনীতি এবং স্মার্ট জনগণ। এই চারটি স্তম্ভকে ভিত্তি করে যে মন্ত্রণালয় যে অংশের সঙ্গে জড়িত সেই অনুযায়ী পরিকল্পনা নিয়ে বাস্তবায়ন করতে নির্দেশনা দিয়েছেন।

‘যেসব প্রকল্প শেষ পর্যায়ে আছে, সেগুলো দ্রুত শেষ করার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যে প্রকল্প থেকে জনগণ সরাসরি উপকার পাবে সেগুলো দ্রুত নিতে বলেছেন। নতুন প্রকল্প নেওয়ার আগে সেটি কীভাবে জনগণের কল্যাণে লাগবে, তা খুব ভালোভাবে পরীক্ষা করতে বলছেন। সরকারি ক্রয়ের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির কথা বলেছেন। জানিয়ে দিয়েছেন দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের কথাও। সব মন্ত্রণালয়কে একই নীতি অনুসরণ করতেও বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।’

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও বলেন, সামাজিক নিরাপত্তার কর্মসূচি যেগুলো আছে সেগুলো যেন প্রকৃত উপকারভোগীরা পায়, তা নিশ্চিত করার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী সরকারি শূন্য পদ পূরণের নির্দেশনা দিয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, নারী উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়নে সাফল্যের যে ধারা তৈরি হয়েছে, সেটি যেন কোনো অবস্থাতেই ব্যাহত না হয় সেদিকে নজর দিতে বলেছেন।

‘রপ্তানি বহুমুখীকরণ এবং নতুন বাজার অনুসন্ধান করে সেখানে প্রবেশে কীভাবে সহায়তা করা যায় সে বিষয়েও নির্দেশনা দিয়েছেন। চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, পাট ও পাটজাত পণ্য এবং কৃষিজাত পণ্য; গার্মেন্টস শিল্পের বিকাশে যেভাবে সহায়তা দেওয়া হয়েছিল- এই তিনটি ক্ষেত্রেও যেন বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে সে নির্দেশনাও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।’

প্রধানমন্ত্রী তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর (আইসিটি) শিক্ষাকে বেশি গুরুত্ব দিতে বলেছেন জানিয়ে মাহবুব হোসেন বলেন, সেটি যেন কর্মমুখী হয়। ফিল্যান্সিং যেন আরও বাড়তে পারে, সেই নির্দেশনা দিয়েছেন। যুব সমাজকে খেলাধুলা ও সংস্কৃতিচর্চার সঙ্গে সম্পৃক্ত করতে বিভিন্ন কর্মসূচি নিতে বলেছেন, যেন তারা মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ থেকে বিরত থাকতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী অগ্নিসন্ত্রাস ও নাশকতা সমন্বিতভাবে মোকাবিলা করার নির্দেশনা দিয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য সংক্রান্ত বিষয়ে মানুষের যে কষ্ট হচ্ছে, সেটি লাঘবের জন্য তিনি কার্যকর পদক্ষেপ নিতে নির্দেশনা দিয়েছেন।

দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতে দেখা যাচ্ছে না- এ প্রশ্নে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আজ মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক হলো। সেখানে প্রধানমন্ত্রী সুস্পষ্ট নির্দেশনা দিয়েছেন। দেখেন কাল থেকে কী হয়, কাল থেকে নিশ্চয়ই কার্যক্রম দেখবেন, আমি আশা করছি।

দুর্নীতি বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী সুনির্দিষ্ট করে কী বলেছেন- জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতি প্রতিরোধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করতে বলেছেন। সরকারি ক্রয়ের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করতে বলেছেন।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, উনি (প্রধানমন্ত্রী) বলেছেন আরএমজিকে (তৈরি পোশাকশিল্পে) আমরা বিশেষ সুযোগ-সুবিধা দিয়েছিলাম বলেই এ খাতে এত ভালো করেছি। চামড়া ও পাট এ দুটি কাঁচামাল আমাদের দেশেই হয়। এ দুটিকেও গার্মেন্টসের মতো সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার জন্য উনি বলেছেন। যেন এই তিনটি ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক বাজারে আমরা সাফল্য অর্জন করতে পারি।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের রীতি হচ্ছে- প্রথম মন্ত্রিসভা বৈঠক যখন হয় তিনি (প্রধানমন্ত্রী) তখন তার কলিগদের অফিসিয়ালি একত্রে পান। তিনি তখন তার পক্ষ থেকে একটি প্রারম্ভিক বক্তব্য দেন। যেহেতু প্রথম মিটিং সে উপলক্ষে তিনি তার তরফ থেকে দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য দিয়েছেন। সেখানে তিনি যে বিষয়গুলোতে জোর দিয়েছেন সেগুলো আমি আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করলাম।

ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে জরিমানা

জাতীয়, 19 September 2023, 223 Views,

চলারপথে রিপোর্ট :
কুতুবদিয়ায় বিভিন্ন অভিযোগে তিনটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ ১৯ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বিকাল ৫টা থেকে সাড়ে ৬টা পর্যন্ত উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জর্জ মিত্র চাকমার নেতৃত্বে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গেইট ও ধূরুং বাজারে এ অভিযান চালানো হয়।

জানা গেছে, অভিযানে লাইসেন্স, পরিবেশ ছাড়পত্র ও অন্যান্য কাগজপত্র হালনাগাদ না থাকা, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও অপরিষ্কার প্রয়োজনীয়সংখ্যক চিকিৎসক ও নার্স না থাকায় নিউ মেডিল্যাব ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ২০ হাজার টাকা, ন্যাশনাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ২০ হাজার টাকা এবং নিরুপম সেবা কেন্দ্রকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জর্জ মিত্র চাকমা বলেন, উপজেলার তিনটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জনসাধারণের স্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুতুবদিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক রেজাউল হাসানসহ পুলিশের একটি দল।

আইনজীবীকে মারধরের ঘটনায় অতিরিক্ত ডিআইজি সাময়িক বরখাস্ত

জাতীয়, 19 June 2023, 457 Views,

অনলাইন ডেস্ক :
নিজ কার্যালয়ে সালিশে বসে এক আইনজীবীকে রড দিয়ে পেটানোর অভিযোগে ময়মনসিংহ রেঞ্জের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক (অতিরিক্ত ডিআইজি) মো. এনামুল কবিরকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আজ ১৯ জুন সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের পুলিশ শাখা-১ থেকে এ বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে প্রজ্ঞাপনে স্বাক্ষর করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

এতে উল্লেখ করা হয়, ‘ময়মনসিংহ রেঞ্জের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক (অতিরিক্ত ডিআইজি) মো. এনামুল কবিরকে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮ এর বিধি ১২(১) অনুযায়ী ১৮ জুন থেকে তাকে সরকারি চাকরি হতে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করার আদেশ দেওয়া হলো। সাময়িক বরখাস্তকালে তিনি সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি অফিসে সংযুক্ত থাকবেন এবং বিধি অনুযায়ী খোরপোষ ভাতা প্রাপ্য হবেন। জনস্বার্থে সরকারি চাকরি হতে সাময়িক বরখাস্ত করা আবশ্যক ও সমীচীন বিবেচিত হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

গত ১৫ জুন ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতিতে এক সংবাদ সম্মেলনে আইনজীবীকে রড দিয়ে পেটানোর অভিযোগ আনা হয় অতিরিক্ত ডিআইজি এনামুল কবিরের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগী আইনজীবী আশিকুর রহমান নিজেই এ অভিযোগ তোলেন। এ ঘটনায় আইনজীবী সমিতি জরুরি সভা করে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তাকে স্থায়ী বরখাস্তের দাবি জানিয়ে আল্টিমেটাম দেয়। দেশের বিভিন্ন স্থানেও একই দাবিতে আইনজীবীরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদলিপি দেন।

ওই সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আইনজীবী সমিতির সদস্য আশিকুর রহমান তার ভাই নেত্রকোনা থানায় কর্মরত পুলিশের এসআই মিজানুর রহমান সুজনের বিরুদ্ধে অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে পুলিশের মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) কাছে অভিযোগ করেন। বুধবার (১৪ জুন) দুপুরে ময়মনসিংহ রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (প্রশাসন ও অর্থ) এনামুল কবিরের কার্যালয়ে অভিযোগের শুনানি নেওয়া হয়।

এ সময় অতিরিক্ত ডিআইজি আশিকুর রহমানের দিকে তাকিয়ে বলেন, ‘তুই বাঁকা হয়ে ঘাড় ত্যাড়া করে দাঁড়িয়েছিস কেন? তুই কার সামনে দাঁড়িয়েছিস জানস?’ এ কথা বলেই কাছে গিয়ে তিনি চড়থাপ্পড় মারতে থাকেন। একপর্যায়ে আশিকুর রহমান নিজেকে আইনজীবী পরিচয় দিলে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন অতিরিক্ত ডিআইজি এনামুল কবির। তিনি কনস্টেবলের মাধ্যমে রড এনে আশিকুরের হাতে ও পায়ে বেধড়ক পেটাতে থাকেন। পরে আশিকুর রহমান ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেন।

অভিযোগের বিষয়টি নিয়ে অতিরিক্ত ডিআইজি মো. এনামুল কবির জানিয়েছিলেন, ‘অভিযোগ শুনানির জন্য আশিকের পরিবারকে ডাকা হলে এক পর্যায়ে দুই ভাই একদিকে আর পাঁচ ভাই ও তাদের মা অন্যদিকে অবস্থান নেন। সেখানেই ঝগড়া করায় প্রথমে থাপ্পড় ও পরে পুলিশের বেত দিয়ে বাড়ি দিয়েছিলাম। রড দিয়ে মারধর করা হয়নি।’

এ ঘটনায় আশিকুর রহমানের অভিযোগের প্রেক্ষিতে আইনজীবী সমিতি ১৮ জুন রবিবার পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়ে অতিরিক্ত ডিআইজির স্থায়ী বরখাস্ত চেয়ে আল্টিমেটাম দিয়েছিল। রবিবার পুনরায় বৈঠক করে আল্টিমেটামের সময় আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বাড়ায় জেলা আইনজীবী সমিতি।

এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ নিয়ে গত শুক্রবার ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে আইনজীবী আশিকের ভাই গোলাম মোহাম্মদ সোহেল পুলিশ কর্মকর্তাকে নির্দোষ বলে দাবি করেন।

ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল বলেন, ‘সরকার নিজস্ব প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সাময়িক বরখাস্ত করছে। আমরা এতে খুশি।’

তবে ভুক্তভোগী আইনজীবী আশিকুর রহমান বলেন, ‘পুলিশ কর্মকর্তার স্থায়ী বরখাস্ত চাই এবং আইনজীবীবান্ধব আইন চাই। এটি কেবল আমার দাবি নয়, সারা দেশের আইনজীবীদের দাবি।’